জীবন যেখানে থমকে থাকেনা এইচডিটি মাধ্যমে

0
218

রূপা বেগম, স্বামী মারাগেছে ২ বছর হল ৩টি সন্তান নিয়ে কি করবে কি করবেনা এ নিয়ে দিশেহারা। একবেলা খাবার জুটে তো আর এক বেলা জুটেনা। দিক বিদিক দ্বারে দ্বোরে ছুটাছুটি করেছে দীর্ঘদিন, কোন কাজ খুজে পায়নি সন্তানদের কান্না দেখে কপালে হাত দিয়ে বসে থাকতো, এমনি এক বিকেল বেলা এইচডিটির এক স্বেচ্ছাসেবক খোজ পায় রূপা বেগমকে, খোজ নেয় সে কি কি কাজ পারে, সে রান্না ও সেলাই ও বাটিকের কাজ জানে, স্বেচ্ছাসেবক তাকে প্রতিশ্রুতি দিয়ে আসে একটি সেলাইমেশিন দেয়ার, মলিন মুখে সেদিন হাসিদেখে বিষয়টি নজরে দেন এইচডিটির পরিচালককে। এরকমের আরো ১১ জন সহ মোট ১২ জন খেটে খাওয়া অসহায় নারীদেরকে আজ ২২ এপ্রিল ২০২১ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে বসে দেয়া হয় ১২ টি সেলাই মেশিন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পিরোজপুর জেলার সম্মাানিত জেলা প্রশাসক জনাব আবু আলী মোঃ সাজ্জাদ হোসেন, উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(সার্বিক) জনাব চৌধুরী রওশন ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) জনাব মোঃ হুমায়ুন কবির, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) জনাব মুনিরা পারভিন, সহকারী কমিশনার ও বিজ্ঞ এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট (এনডিসি) জনাব মোঃ আল এমরান খান  এইচডিটির পরিচালক মেহেদী হাসান, বাবুই সমাজিক উন্নয়ন সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা হাছিবুর রহমান, প্রাণফোঁটার পরিচালক ম. শহিদুল্লাহ, সদস্য মশিউর শান্ত, বিজয় নিশানের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক হাফিজুর রহমান, রুপশি বাংলার কো-অর্ডিনেটর আলতাফ হোসেন, রক্তের বন্ধন এর পরিচালক নাজমুল হাসান, কলাখালী যুব সংগঠনের পরিচালক রানেল, প্রমুখ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here